1. khabarerferiwalabd@gmail.com : Forhad Hossain : Forhad Hossain
  2. borsha1308@gmail.com : Suraiya Sharmin Borsha : Suraiya Sharmin Borsha
ডলার কারসাজি, আইনি বেড়াজালে হোতারা - খবরের ফেরিওয়ালা
রবিবার, ১১ জুন ২০২৩, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় ভারতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৩৩ ২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে সম্মতি দিলেন রাষ্ট্রপতি ব্যক্তিগত ভিডিও ফাঁস নিয়ে মুখ খুললেন তানজিন তিশা গোয়েন্দা স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করায় উ.কোরিয়ার নিন্দা যুক্তরাষ্ট্রের নাটোরে পালন করা হলো বিশ্ব দুগ্ধ দিবস বাংলাদেশ-তুরস্ক সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার হাসিনা ও এরদোয়ানের দেশের ৫২তম বাজেট আগামীকাল উপস্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল ট্রান্সফরমার চুরি প্রতিরোধে ডিভাইস উদ্ভাবন করেছে পাবনা পল্লী বিদুৎ সমিতি বাংলাদেশ সংঘাতে নয়, শান্তিতে বিশ্বাসী : প্রধানমন্ত্রী চাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘বিশ্ব মীনা দিবস’ উদযাপিত

ডলার কারসাজি, আইনি বেড়াজালে হোতারা

  • প্রকাশিত সময় : মঙ্গলবার, ২ আগস্ট, ২০২২
  • ১০১ বার পঠিত
ডলার কারসাজি, আইনি বেড়াজালে হোতারা

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।
ডলার কারসাজির সঙ্গে জড়িত চক্র বা হোতাদের একটি অংশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সম্প্রতি তাদের তদন্তে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এর মধ্যে কারসাজির সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে তিনটি মানি চেঞ্জার্স প্রতিষ্ঠানের সব ধরনের কার্যক্রম স্থগিত করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রধান নির্বাহীদের চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।
এছাড়া একই অভিযোগে আরও ২টি মানি চেঞ্জার্স প্রতিষ্ঠনের সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে। এ বিষয়ে আজ-কালের মধ্যেই কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোতে চিঠি দেওয়া হবে। লাইসেন্স ছাড়া মানি এক্সচেঞ্জ ব্যবসায় করায় ১১টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পুলিশ সদর দপ্তরে চিঠি দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
সূত্র জানায়, যে তিনটি মানি চেঞ্জার্স প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে সেগুলো হচ্ছে-রাজধানীর ফকিরাপুল এলাকার বিসমিল্লাহ মানি চেঞ্জার্স, নয়াপল্টনের ফয়েজ মানি এক্সচেঞ্জ ও পুরানা পল্টনের অংকন মানি চেঞ্জার্স লিমিটেড।
সাম্প্রতিক সময়ে ডলারের দাম অস্বাভাবিকভাবে বাড়ায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিদর্শক দল মানি চেঞ্জার্স প্রতিষ্ঠানগুলোতে তদন্ত করে। তারা প্রতিষ্ঠানগুলোর ডলার বিক্রি ও কেনার তথ্য সংগ্রহ করে সেগুলো পর্যালোচনা করে ওই ৩টি প্রতিষ্ঠানে বড় ধরনের অনিয়ম পেয়েছে। এ কারণে তাদের সব ধরনের ব্যবসায়িক কার্যক্রম স্থগিত করেছে। বেআইনি কর্মকাণ্ডের জন্য কেন তাদের লাইসেন্স বাতিল করা হবে না এ মর্মে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদনে ওইসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিধিবহির্ভূতভাবে ডলার কিনে তা খোলাবাজারে বিক্রি এবং ডলার মজুতের তথ্য পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক আরও বিশদ তদন্ত করছে।
প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবসা করতে হলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে লাইসেন্স নিতে হয়। লাইসেন্স ছাড়া এ ব্যবসা করার কোনো সুযোগ নেই। কিন্তু কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিদর্শনে ১১টি মানি চেঞ্জার্স প্রতিষ্ঠানের কোনো লাইসেন্স পাওয়া যায়নি। এসব প্রতিষ্ঠান কোনো লাইসেন্স ছাড়াই বেআইনিভাবে মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবসা করে আসছিল। যেহেতু কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ওইসব প্রতিষ্ঠানের নামে কোনো লাইসেন্স নেই, সেই কারণে এদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় ব্যাংক কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে তাদের তালিকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে। একই সঙ্গে বেআইনি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।
সূত্র জানায়, লাইসেন্স ছাড়া মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবসা করার দায়ে ওইসব প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হবে। একই সঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে মামলাও করা হবে।
এদিকে গোয়েন্দারা বাজার থেকে বেআইনিভাবে ডলার কিনে যারা মজুত করেছেন তাদের খুঁজছেন। এজন্য মানি চেঞ্জার্স প্রতিষ্ঠান থেকে ডলার কেনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের তালিকাও সংগ্রহ করেছেন।
এছাড়া ডলার মজুত ও বেআইনিভাবে কেনাবেচার দায়ে আরও ২টি মানি চেঞ্জার্স প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এ বিষয়ে আজ-কালের মধ্যে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে চিঠি দেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর...

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ খবরের ফেরিওয়ালা
Theme Customized By Shakil IT Park